ফরিদগঞ্জ ১০:৫৫ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
ফরিদগঞ্জ উপজেলা যুবদলের পূর্নাঙ্গ কমিটি অনুমোদন  ফরিদগঞ্জে সড়কের উপর কোরবানীর পশুর হাট ॥ তীব্র যানজটে ভোগান্তি চরমে সৌদি আরবে সড়ক দুর্ঘটনায় ফরিদগঞ্জের এক যুবকের মৃত্যু  পাঞ্জেরী-চাঁদপুর কন্ঠ বিতর্কে জেলা চ্যাম্পিয়ন ফরিদগঞ্জ ইকরা মডেল মাদ্রাসা ফরিদগঞ্জে এক রাতে ১৪ টি গরু চুরি ফরিদগঞ্জ থানার ওসি সাইদুল ইসলামকে প্রত্যাহার ফরিদগঞ্জ ইকরা মডেল মাদ্রাসা’র বৃত্তি প্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের সংর্বধনা প্রদান ফরিদগঞ্জে সংবাদ সম্মেলনে চেয়ারম্যান প্রার্থী আমীর আজম রেজার নির্বাচনী প্রচারনায় হামলা ও হুমকির অভিযোগ ফরিদগঞ্জে বিএনপির ভোট বর্জনের আহ্বানে লিফলেট বিতরণ ফরিদগঞ্জে আমির আজম রেজাকে সমর্থন দিয়ে মনোনয়ন প্রত্যাহার করলেন দুই চেয়ারম্যান প্রার্থী

থানায় মামলা করতে এসে মন্দিরে চুরি ।। ১০ ঘন্টার মধ্যে পুলিশের হাতে আটক

শামীম হাসান
  • আপডেট সময় : ০৩:২৮:৩৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৭ ডিসেম্বর ২০২৩ ২৪৭ বার পড়া হয়েছে

 

মাদক সেবন নিয়ে কথা কাটাকাটি কেন্দ্র করে মারধরের শিকার হয়ে থানায় মামলা করতে এসে থানার সামনের মন্দিরের দানবাক্স থেকে টাকা চুরি করে শেষ রক্ষা হয়নি আকতার হোসেন (২৫) এর। সিসি ক্যামেরা ফুটেজ দেখে চুরির ঘটনার ১০ ঘন্টার মধ্যে পুলিশের জালে আটক হয় সে। বৃহষ্পতিবার (৭ ডিসেম্বর) সকালে প্রেস কনফারেন্সে একথা জানায় থানা পুলিশ।

প্রেসব্রিফিংএ থানার ওসি মো: সাইদুল ইসলাম জানায়, উপজেলার চরদু:খিয়া পূর্ব ইউনিয়নের সন্তোষপুর গ্রামের মৃত মনির হোসেনের ছেলে আকতার হোসেন একজন পেশাদার চোর। তার আতংকে নিজ গ্রামের লোকজন আতংকে থাকে। চুরি করতে গিয়ে সে অন্তত এলাকাবাসীর হাতে ১০/১৫ বার গণপিটুনির শিকার হয়েছে। সর্বশেষ কয়েকদিন পুর্বে আকতার মাদক সেবন করতে গিয়ে মারধরের শিকার হয়। এই ঘটনায় মঙ্গলবার (৫ নভেম্বর) দিনগত রাতে সে থানায় আসে মারধরের ঘটনায় মামলা করতে। গভীর রাত হওয়ায় সে থানার মুখোমুখি থাকা উপজেলার কেন্দ্রীয় মন্দির শ্রী শ্রী লক্ষ্মীনারায়ন জিউর আখড়া ভিতরে প্রবেশ করে দানবাক্স ভেঙ্গে টাকা চুরি করে পালিয়ে যায়।

থানার নাকের ডগায় চুরির ঘটনায় থানা পুলিশ থানার এবং মন্দিরের সিসি টিভি ফুটেজ দেখে চোর সনাক্ত করে। পরে অভিযান চালিয়ে বুধবার রাতে (৬ডিসেম্বর) অভিযুক্ত আকতার হোসেনকে সন্তোষপুর গ্রামের তার বাড়ি থেকে আটক করে। এসময় চুরি হওয়া মালামাল উদ্ধার করে। এব্যাপারে থানায় মামলা দায়ের হয়েছে।

পুলিশ আরো জানায়, তার বিরুদ্ধে থানায় মাত্র পুর্বের একটি মামলা রয়েছে। চুরির ঘটনায় কেউ মামলা করতে চায় না। ইতিপুর্বে সে চুরির ঘটনায় জেলে গেলে সেখানেও সে জেলের ভিতরেও চুরি করে। এমনকি মারধরের শিকায় হয়ে ফরিদগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গিয়ে চিকিৎসা নেয়ার সময় ওই চিকিৎসকের অর্থ চুরি করে সে। একথা সে পুলিশের কাছে স্বীকার করেছে।

প্রেসব্রিফিং কালে ওসি(তদন্ত) প্রদীপ মন্ডল, প্রেসক্লাবের সভাপতি মামুনুর রশিদ পাঠানসহ সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

থানায় মামলা করতে এসে মন্দিরে চুরি ।। ১০ ঘন্টার মধ্যে পুলিশের হাতে আটক

আপডেট সময় : ০৩:২৮:৩৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৭ ডিসেম্বর ২০২৩

 

মাদক সেবন নিয়ে কথা কাটাকাটি কেন্দ্র করে মারধরের শিকার হয়ে থানায় মামলা করতে এসে থানার সামনের মন্দিরের দানবাক্স থেকে টাকা চুরি করে শেষ রক্ষা হয়নি আকতার হোসেন (২৫) এর। সিসি ক্যামেরা ফুটেজ দেখে চুরির ঘটনার ১০ ঘন্টার মধ্যে পুলিশের জালে আটক হয় সে। বৃহষ্পতিবার (৭ ডিসেম্বর) সকালে প্রেস কনফারেন্সে একথা জানায় থানা পুলিশ।

প্রেসব্রিফিংএ থানার ওসি মো: সাইদুল ইসলাম জানায়, উপজেলার চরদু:খিয়া পূর্ব ইউনিয়নের সন্তোষপুর গ্রামের মৃত মনির হোসেনের ছেলে আকতার হোসেন একজন পেশাদার চোর। তার আতংকে নিজ গ্রামের লোকজন আতংকে থাকে। চুরি করতে গিয়ে সে অন্তত এলাকাবাসীর হাতে ১০/১৫ বার গণপিটুনির শিকার হয়েছে। সর্বশেষ কয়েকদিন পুর্বে আকতার মাদক সেবন করতে গিয়ে মারধরের শিকার হয়। এই ঘটনায় মঙ্গলবার (৫ নভেম্বর) দিনগত রাতে সে থানায় আসে মারধরের ঘটনায় মামলা করতে। গভীর রাত হওয়ায় সে থানার মুখোমুখি থাকা উপজেলার কেন্দ্রীয় মন্দির শ্রী শ্রী লক্ষ্মীনারায়ন জিউর আখড়া ভিতরে প্রবেশ করে দানবাক্স ভেঙ্গে টাকা চুরি করে পালিয়ে যায়।

থানার নাকের ডগায় চুরির ঘটনায় থানা পুলিশ থানার এবং মন্দিরের সিসি টিভি ফুটেজ দেখে চোর সনাক্ত করে। পরে অভিযান চালিয়ে বুধবার রাতে (৬ডিসেম্বর) অভিযুক্ত আকতার হোসেনকে সন্তোষপুর গ্রামের তার বাড়ি থেকে আটক করে। এসময় চুরি হওয়া মালামাল উদ্ধার করে। এব্যাপারে থানায় মামলা দায়ের হয়েছে।

পুলিশ আরো জানায়, তার বিরুদ্ধে থানায় মাত্র পুর্বের একটি মামলা রয়েছে। চুরির ঘটনায় কেউ মামলা করতে চায় না। ইতিপুর্বে সে চুরির ঘটনায় জেলে গেলে সেখানেও সে জেলের ভিতরেও চুরি করে। এমনকি মারধরের শিকায় হয়ে ফরিদগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গিয়ে চিকিৎসা নেয়ার সময় ওই চিকিৎসকের অর্থ চুরি করে সে। একথা সে পুলিশের কাছে স্বীকার করেছে।

প্রেসব্রিফিং কালে ওসি(তদন্ত) প্রদীপ মন্ডল, প্রেসক্লাবের সভাপতি মামুনুর রশিদ পাঠানসহ সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।