ফরিদগঞ্জ ১০:২৭ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৭ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
প্রেসিডেন্ট পুলিশ মেডেল -২০২৪ পদক পেলেন ফরিদগঞ্জের ‘শামছুন্নাহার’ বেসরকারি শিক্ষক কর্মচারিদের পূর্নাঙ্গ উৎসব বোনাসের দাবীতে স্মারক লিপি প্রদান ভাষা দিবসে প্রেরণা সামাজিক সংঘের সচেতনতামূলক সাইকেল র‍্যালি  র‍্যালি ও কেক কাটার মধ্য দিয়ে ফরিদগঞ্জে বিপি দিবস পালিত বর্ণিল আয়োজনে ‘ফরিদগঞ্জ বর্ণমালা কিন্ডারগার্টেন’র পুরস্কার বিতরণ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ফরিদগঞ্জে নিসচা’র ছাগল বিতরণ ফরিদগঞ্জ প্রেসক্লাবের বার্ষিক ভ্রমণ  ফরিদগঞ্জে চাঁদাবাজির মামলায় ইউপি চেয়ারম্যান আটক ফরিদগঞ্জে স্বপ্ন ছায়া সামাজিক সংগঠনের ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান ফরিদগঞ্জে দুই হাসপাতালে সিলগালা ও জরিমানা

ক্যান্সারে আক্রান্ত রবিউলের চিকিৎসায় প্রয়োজন ৩ লক্ষাধিক টাকা ।। বৃত্তবানদের এগিয়ে আসার আহ্বান

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৬:৩০:৪৯ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২২ জুন ২০২২ ২৯৩ বার পড়া হয়েছে

শামীম হাসান : পুরুষ মানুষ কাঁদে না। ক্ষুদার যন্ত্রনায় কাতর হয়ে না খেয়ে থাকলেও নিজের জন্য হাত পাতে না। জীবনের পথা চলায় পুরুষের সকল সংগ্রামই পরিবার কে ঘিরে।ক্যান্সারে আক্রান্ত ফুটফুটে  রবিউলের বাবার কথা। ক্যান্সারে আক্রান্ত রবিউলের বাবা রুহুল আমীন এখন স্বপ্ন একটাই  দুরন্ত রবিউল আবার ছুটবে পথে প্রান্তরে, তবে তার জন্য যে তার চিকিৎসা করতে হবে আর ছেলের পূর্নচিকিৎসার জন্য এখন প্রয়োজন মোটা অঙ্কের টাকা। যা অটোরিকশা চালক বাবা রুহুল আমীনের পক্ষে কখনোই সম্ভব না। ছেলের অসুস্থতার পর চিকিৎসা সহায়তার  জন্য সমাজসেবা অফিসে আবেদন করার পর বার বার উপজেলা সমাজসেবা অফিস দারকোনায় হাঁটলে পাননি কোন সহায়তা বরং লাঞ্চনার শিকার হয়েছে সমাজসেবা অফিসের কর্মকর্তার দ্বারা। কোন উপায় না পেয়ে সন্তানের চিকিৎসা করানোর জন্য মানুষের দ্বারে দ্বারে ঘুরছেন বাবা রুহুল আমীন।

রবিউল ক্যান্সারে আক্রান্ত হওয়ার পর ঢাকার নোয়াখালী ক্যান্সার  হাসপাতালের ডাক্তারকে  দেখানোর পর ডাক্তার জানান ক্যান্সারের কেমো দেওয়ার জন্য প্রতিমাসে খরচ হবে ৩৫ হাজার টাকা। সন্তান অসুস্থ হওয়ার পর নিজের যা পুজি ছিলো তা দিয়ে, স্থানীয়দের এবং কয়েকটি সংগঠনের সহযোগিতায় ৩৫ হাজার টাকা করে ৩ মাস চিকিৎসা খরচ চালানোর পরও অসহায় হয়ে ফুটবল একাডেমির দারস্থ হলে ফুটবল একাডেমির পরিচালক আসিফুর রহমান ছোটন ক্লাবের অন্যান্য পরিচালকরা সহ আরো এক মাসের চিকিৎসার অর্থ জুগিয়েছেন। তবে সঙ্কার কথা হলো ফুটবল একাডেমির এক মাস চিকিৎসা খরচ দেওয়ার পরও এখনো যে ৮ মাস করতে হবে অসুস্থ রবিউলের চিকিৎসা, যার জন্য দরকার  এখনো তিন লক্ষাধিক টাকা। অধিক দ্রব্য মূল্যের এই বাজারে দিনমজুর বাবা রুহুল আমীন অটো চালিয়ে যেখানে নুন আনতে পানতা ফুরায় সেখানে কিভাবে যোগান দিবেন এত টাকা। কোথায় পাবেন এত টাকা..? সে শঙ্কা রাতের ঘুমটুকুও কেঁড়ে নিয়েছে রবিউলের বাবার। রবিউল সুস্থ হয়ে স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে এখন  সমাজের বৃত্তবান ও  সামাজিক সংগঠন গুলো এগিয়ে আসে রবিউলের পাশে দাঁড়ানোর যেন এখন সময়ের দাবি মাত্র।

এ বিষয়ে রবিউলের বাবা রুহুল আমীন চাঁদপুর কন্ঠের এই প্রতিনিধিকে জানান, আমার রবিউলরে এটকু আমার দুই চোখের সামনে ভালা ওই অন্য পোলাপানের মত চলুক  আমি তা দেখতে চাই। পোলডার অসুখ হওনের পর কত মাইনষের ধারে যেন গেছি, আশে পাশের মাইনষে অনে সহযোগীতা কইচ্ছে সব টিয়া এক সাথে করি এই পইর্যন্ত ৩ মাস হোলারে চিকিৎসা করাইছি, আইজ আবার ফুটবলে একাডেমির এই ভাইয়েরা আরো এক মাসের চিকিৎসার খরচ দিলো (কান্নায় ভেঙে পড়ে) কিন্তু রবিউলে ভালো হওনের লাই তো এহন লাখ লাখ টাকা লাগবো। আমার পোলার চিকিৎসারলাই বড়লোক আর ফুটবল একাডেমির মত সবাই যদি সাহায্য সহযোগিতা কইত্তো তাইলে পোলাডায় সুস্থ হই যাইতো।

গত ১৬ জুন (বৃহস্পতিবার) রবিউলের বাবার হাতে এক মাসের চিকিৎসা সহায়তার অর্থ তুলে দেওয়ার পর ফরিদগঞ্জ ফুটবল একাডেমির সাধারণ সম্পাদক আসিফুর রহমান ছোটন এ প্রতিনিধিকে জানান , অটো চালক রুহুল আমীন উনার ছেলের মেরুদণ্ডের হাড়ে ক্যান্সার ধরা পড়েছে। ছেলের চিকিৎসা খরচ চালানোর মতো তার সামর্থ্য না থাকায় তিনি আমাদের সাথে যোগাযোগ করেছেন এবং আমরা ফুটবল একাডেমির পরিচালকগন মিলে এক মাসের চিকিৎসা খরচের ব্যবস্থা করেছি । সমাজে অনেক বৃত্তবান আছেন দান-অনুদান দেওয়ার মতো অনেক দানবীর ব্যাক্তি আছেন  আমি তাদের প্রতি অনুরোধ করি উনার ছেলের চিকিৎসার জন্য মানবিক দিক বিবেচনা করে বাকি আট মাসের  অর্থ সহায়তায় এগিয়ে আসলে তাহলে একজন অসহায় বাবার স্বপ্ন বাঁচবে, উপকৃত হবে রবিউল।

সমাজের কোন বৃত্তবান কিনবা কোন সংগঠনের পক্ষ থেকে রবিউলের চিকিৎসা সহায়তা করতে রবিউলের বাবা রুহুল আমীন এর (01781727944) নাম্বারে যোগাযোগ করে রবিউলের চিকিৎসা সহায়তায় এগিয়ে আসতে পারেন৷

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

ক্যান্সারে আক্রান্ত রবিউলের চিকিৎসায় প্রয়োজন ৩ লক্ষাধিক টাকা ।। বৃত্তবানদের এগিয়ে আসার আহ্বান

আপডেট সময় : ০৬:৩০:৪৯ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২২ জুন ২০২২

শামীম হাসান : পুরুষ মানুষ কাঁদে না। ক্ষুদার যন্ত্রনায় কাতর হয়ে না খেয়ে থাকলেও নিজের জন্য হাত পাতে না। জীবনের পথা চলায় পুরুষের সকল সংগ্রামই পরিবার কে ঘিরে।ক্যান্সারে আক্রান্ত ফুটফুটে  রবিউলের বাবার কথা। ক্যান্সারে আক্রান্ত রবিউলের বাবা রুহুল আমীন এখন স্বপ্ন একটাই  দুরন্ত রবিউল আবার ছুটবে পথে প্রান্তরে, তবে তার জন্য যে তার চিকিৎসা করতে হবে আর ছেলের পূর্নচিকিৎসার জন্য এখন প্রয়োজন মোটা অঙ্কের টাকা। যা অটোরিকশা চালক বাবা রুহুল আমীনের পক্ষে কখনোই সম্ভব না। ছেলের অসুস্থতার পর চিকিৎসা সহায়তার  জন্য সমাজসেবা অফিসে আবেদন করার পর বার বার উপজেলা সমাজসেবা অফিস দারকোনায় হাঁটলে পাননি কোন সহায়তা বরং লাঞ্চনার শিকার হয়েছে সমাজসেবা অফিসের কর্মকর্তার দ্বারা। কোন উপায় না পেয়ে সন্তানের চিকিৎসা করানোর জন্য মানুষের দ্বারে দ্বারে ঘুরছেন বাবা রুহুল আমীন।

রবিউল ক্যান্সারে আক্রান্ত হওয়ার পর ঢাকার নোয়াখালী ক্যান্সার  হাসপাতালের ডাক্তারকে  দেখানোর পর ডাক্তার জানান ক্যান্সারের কেমো দেওয়ার জন্য প্রতিমাসে খরচ হবে ৩৫ হাজার টাকা। সন্তান অসুস্থ হওয়ার পর নিজের যা পুজি ছিলো তা দিয়ে, স্থানীয়দের এবং কয়েকটি সংগঠনের সহযোগিতায় ৩৫ হাজার টাকা করে ৩ মাস চিকিৎসা খরচ চালানোর পরও অসহায় হয়ে ফুটবল একাডেমির দারস্থ হলে ফুটবল একাডেমির পরিচালক আসিফুর রহমান ছোটন ক্লাবের অন্যান্য পরিচালকরা সহ আরো এক মাসের চিকিৎসার অর্থ জুগিয়েছেন। তবে সঙ্কার কথা হলো ফুটবল একাডেমির এক মাস চিকিৎসা খরচ দেওয়ার পরও এখনো যে ৮ মাস করতে হবে অসুস্থ রবিউলের চিকিৎসা, যার জন্য দরকার  এখনো তিন লক্ষাধিক টাকা। অধিক দ্রব্য মূল্যের এই বাজারে দিনমজুর বাবা রুহুল আমীন অটো চালিয়ে যেখানে নুন আনতে পানতা ফুরায় সেখানে কিভাবে যোগান দিবেন এত টাকা। কোথায় পাবেন এত টাকা..? সে শঙ্কা রাতের ঘুমটুকুও কেঁড়ে নিয়েছে রবিউলের বাবার। রবিউল সুস্থ হয়ে স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে এখন  সমাজের বৃত্তবান ও  সামাজিক সংগঠন গুলো এগিয়ে আসে রবিউলের পাশে দাঁড়ানোর যেন এখন সময়ের দাবি মাত্র।

এ বিষয়ে রবিউলের বাবা রুহুল আমীন চাঁদপুর কন্ঠের এই প্রতিনিধিকে জানান, আমার রবিউলরে এটকু আমার দুই চোখের সামনে ভালা ওই অন্য পোলাপানের মত চলুক  আমি তা দেখতে চাই। পোলডার অসুখ হওনের পর কত মাইনষের ধারে যেন গেছি, আশে পাশের মাইনষে অনে সহযোগীতা কইচ্ছে সব টিয়া এক সাথে করি এই পইর্যন্ত ৩ মাস হোলারে চিকিৎসা করাইছি, আইজ আবার ফুটবলে একাডেমির এই ভাইয়েরা আরো এক মাসের চিকিৎসার খরচ দিলো (কান্নায় ভেঙে পড়ে) কিন্তু রবিউলে ভালো হওনের লাই তো এহন লাখ লাখ টাকা লাগবো। আমার পোলার চিকিৎসারলাই বড়লোক আর ফুটবল একাডেমির মত সবাই যদি সাহায্য সহযোগিতা কইত্তো তাইলে পোলাডায় সুস্থ হই যাইতো।

গত ১৬ জুন (বৃহস্পতিবার) রবিউলের বাবার হাতে এক মাসের চিকিৎসা সহায়তার অর্থ তুলে দেওয়ার পর ফরিদগঞ্জ ফুটবল একাডেমির সাধারণ সম্পাদক আসিফুর রহমান ছোটন এ প্রতিনিধিকে জানান , অটো চালক রুহুল আমীন উনার ছেলের মেরুদণ্ডের হাড়ে ক্যান্সার ধরা পড়েছে। ছেলের চিকিৎসা খরচ চালানোর মতো তার সামর্থ্য না থাকায় তিনি আমাদের সাথে যোগাযোগ করেছেন এবং আমরা ফুটবল একাডেমির পরিচালকগন মিলে এক মাসের চিকিৎসা খরচের ব্যবস্থা করেছি । সমাজে অনেক বৃত্তবান আছেন দান-অনুদান দেওয়ার মতো অনেক দানবীর ব্যাক্তি আছেন  আমি তাদের প্রতি অনুরোধ করি উনার ছেলের চিকিৎসার জন্য মানবিক দিক বিবেচনা করে বাকি আট মাসের  অর্থ সহায়তায় এগিয়ে আসলে তাহলে একজন অসহায় বাবার স্বপ্ন বাঁচবে, উপকৃত হবে রবিউল।

সমাজের কোন বৃত্তবান কিনবা কোন সংগঠনের পক্ষ থেকে রবিউলের চিকিৎসা সহায়তা করতে রবিউলের বাবা রুহুল আমীন এর (01781727944) নাম্বারে যোগাযোগ করে রবিউলের চিকিৎসা সহায়তায় এগিয়ে আসতে পারেন৷